Loading Events
Days
Hours
Minutes
Seconds
ক্যারিয়ার হোক ফ্রিল্যান্স গ্রাফিক ডিজাইনঃ
সাধারণত একজন নতুন (৬মাস-১বছর অভিজ্ঞতাসম্পন্ন) ফ্রিল্যান্স গ্রাফিক ডিজাইনার অনলাইন মার্কেটপ্লেসে প্রতি ঘন্টায় ১০/২০ ডলার রেটে কাজ করেন এবং মাসে গড়ে ২০,০০০-৫০,০০০ টাকা আয় করতে পারেন। কয়েক বছরের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন একজন ডিজাইনার প্রতি ঘন্টায় ২০/৬০ ডলার বা মাসে লক্ষাধিক টাকা আয় করতে পারেন ।
বিস্তারিত জানতে নিচের লেখাগুলো পড়ে নিন।
গ্রাফিক্স ডিজাইন বর্তমান সময়ে একটি জনপ্রিয় পেশা। এ কাজটি একই সাথে আনন্দদায়ক এবং সৃজনশীল। যদি আপনার মাঝে সৃজনশীলতা থাকে আর স্বাধীনভাবে কাজ করতে চান তাহলে ফ্রিল্যান্স গ্রাফিক ডিজাইনার হিসেবে গড়ে তুলতে পারেন নিজেকে। বিস্তৃত কর্মক্ষেত্র আর তুমুল চাহিদা থাকার কারণে একজন প্রফেশনাল গ্রাফিক ডিজাইনারের গ্রহণযোগ্যতা খুবই বেশি। গ্রাফিক্স ডিজাইনে আউটসোর্সিং বা প্রোডাক্ট বেইজড কাজ করতে হলে আপনাকে আন্তর্জাতিক মানের গ্রাফিক্স এর কাজ শিখতে হবে| নিজেকে আন্তর্জাতিক মানের ডিজাইনার হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চাইলে পাড়ি দিতে হবে দীর্ঘ পথ, জানতে হবে নিত্য-নতুন কলা-কৌশল।
গ্রাফিক্স ডিজাইন কি?
গ্রাফিক ডিজাইন হলো একটি মননশীল প্রক্রিয়া, যে প্রক্রিয়ায় একজন গ্রাফিক ডিজাইনার বিভিন্ন ভিজুয়্যাল এলিমেন্ট(লাইন, কালার, টেক্সচার ইত্যাদি) দ্বারা তার চিন্তা ও মননশীলতার বহিপ্রকাশ ঘটায় অথবা সোসাইটিকে অর্থবহ মেসেজ দিয়ে থাকে অথবা বিভিন্ন সমস্যার সমাধান তুলে ধরে…। আর এ জন্যই গ্রাফিক ডিজাইনকে বলা হয় “আর্ট অব কমিউনিকেশন”।
যা জানতে হবেঃ
গ্রাফিক ডিজাইনার হওয়ার জন্য আপনাকে গ্র্যাজুয়েট হওয়ার প্রয়োজন নেই তবে ইংরেজিতে মোটামুটি দক্ষতা থাকলে অনেক ভালো করতে পারবেন। অনলাইনে তথ্য খোঁজার ক্ষেত্রে কিংবা বিদেশি বায়ারের সাথে যোগাযোগের জন্য ইংরেজি জানা একটি পূর্বশর্ত। এ ছাড়া কম্পিউটার অপারেট করা জানতে হবে অর্থাৎ বেসিক কম্পিউটিং সম্পর্কে ধারণা থাকা আবশ্যক। ইন্টারনেট সংযোগ থাকলে খুবই ভালো হয়; তাহলে আপনি যে কোন বিষয়ে অনলাইন থেকে সাহায্য নিতে পারবেন।
গ্রাফিক্স ডিজাইনারের কাজের ক্ষেত্রঃ
যে কোন পণ্য বা সার্ভিসের প্রচারণার জন্য দৃষ্টিনন্দন ও আকর্ষণীয় ডিজাইনের বিকল্প নেই। তাই ডিজাইনারকে কাজ করতে হয় মানুষের বয়স, আচার-আচরণ, পেশা, চাহিদা প্রভৃতি দিকগুলো বিবেচনা করে। আগেই বলা হয়েছে গ্রাফিক্স ডিজাইনারদের কাজের ক্ষেত্র বিস্তৃত। অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে মোটামুটি গ্রাফিক্সের সবধরনের কাজ পাওয়া যায়। তবে বিশেষভাবে যে কাজগুলোর চাহিদা অনেক বেশি, তা নিচে দেয়া হল
১। লোগো ডিজাইন ২। ভিজিটিং কার্ড ডিজাইন ৩। ওয়েবসাইট পিএসডি টেম্প্লেট ডিজাইন ৪। ওয়েব ব্যানার ডিজাইন ৫। বুক কভার ডিজাইন ৬। টি-শার্ট ডিজাইন ৭। পোস্ট কার্ড ডিজাইন ৮। বিজ্ঞাপন ডিজাইন ৯। আইকোন ডিজাইন ১০। ডিজিটাল ইমেজ প্রসেসিং ১১। ব্রুশিয়ার ডিজাইন ১২। মোবাইল অ্যাপ/ইউআই ডিজাইন ইত্যাদিসহ আরো অনেক কাজ পাওয়া যায়।

অন্যদিকে গ্রাফিক ডিজাইনের কথা বললে যে দুটি সফটওয়্যার এর কথা সবার চোখের সামনে ভেসে উঠে তা হলো অ্যাডোবি ফটোশপ এবং ইলাস্ট্রেটর। গ্রাফিক ডিজাইন, ওয়েবসাইট ডিজাইন, ফটোগ্রাফি রিটাচ, ফটো ম্যানিপুলেশান, প্রেজেন্টেশন টেমপ্লেট, থ্রিডি অ্যানিমেশন, মোশন গ্রাফিক্স, মাল্ডিমিডিয়া প্রোডাকশন ইত্যাদি সকল ক্ষেত্রে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে এই দুইটি সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয়।

তবে প্রফেশনাল গ্রাফিক ডিজাইনার হতে হলেই যে আপনাকে ফটোশপ, ইলাস্ট্রেটর শিখতে হবে তা নয়! কর্মক্ষেত্র, নিজের ব্যাবসা, ব্যক্তিজীবন প্রতিটি ক্ষেত্রকে আরও অর্থবহ করে তুলতে পারে এই দুইটি সফটওয়্যার এর ব্যবহার।

কোথায় জব/কাজ পাবেনঃ

– ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেস
– বিজ্ঞাপন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান
– পত্রিকা/ম্যাগাজিন/প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান
– অনলাইন মার্কেট প্লেইস
– প্রিন্টিং এবং ডিজাইনিং প্রতিষ্ঠান
– ওয়েব ডেভেলপিং প্রতিষ্ঠান

– যেকোনো প্রতিষ্ঠানের ডিজাইনার

গ্রাফিক্স সম্পর্কিত আউটসোর্সিং কাজের ওয়েবসাইটঃ

গ্রাফিক্স প্রতিযোগীতাঃ কিছু ওয়েবসাইট রয়েছে, যেখানে সবাই ক্লাইন্টের চাহিদা অনুযায়ী ডিজাইন সাবমিটের মাধ্যমে প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করে এবং যে বিজয়ী হয়, সে ঐ প্রতিযোগিতার নির্ধারিত অর্থ পায়। এই ধরনের প্রতিযোগিতা হয় এমন উল্লেখ যোগ্য সাইট হচ্ছেঃ
ডিজাইন বিক্রিঃ আবার কিছু কিছু সাইট আছে, যেখানে আপনার তৈরি বিভিন্ন আইটেম আপলোড করে রাখবেন এবং সেগুলো বিক্রির মাধ্যমে আয় করতে পারবেন। যেমনঃ
বিড করে কাজ : আবার কিছু কিছু সাইট আছে, যেখানে ক্লাইন্টের জবে বিড করে কাজ করা যায়। যেমনঃ
অন্যান্যঃ উপরে উল্লেখিত সাইট গুলো ছাড়াও আরও অনেক সাইট রয়েছে যেখান থেকেও প্রচুর গ্রাফিক্সের কাজ পাওয়া যায়। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছেঃ www.fiverr.com
যেসব বিষয়ে আপনাকে যত্নবান হতে হবেঃ
-> অবশ্যাই ভালভাবে কাজ শেখা।
-> নিজে থেকে কিছু করার চেষ্টা করা (ক্রিয়েটিভিটি)
-> নিজেকে আপ-টু-ডেট রাখা
-> প্রতিষ্ঠিত ডিজাইনারদের কাজ অনুসরণ করা
-> কাজের স্যাম্পল টেম্পলেট/ পোর্টফলিও তৈরি করে রাখা
-> নিজের মার্কেটিং করা
যারা এখনো ভাবছেন কি করা যায়, দ্বিধা-দ্বন্দে দিন কাটাচ্ছেন তারা নিঃসন্দেহে শুরু করে দিন গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার কাজ। দেশে বিদেশে আপনার জন্য কাজের ক্ষেত্র প্রস্তুত। উচ্চমানের চাহিদা সম্পন্ন একটি প্রফেশন হচ্ছে গ্রাফিক ডিজাইন।
কিভাবে গ্রাফিক ডিজাইন শিখবেনঃ
চট্টগ্রামে বীকন আইটি আউটসোর্সিং মার্কেটে কাজের উপযোগী করে আন্তর্জাতিক মানের কোর্স অফার করে থাকে। দক্ষ ও অভিজ্ঞ প্রশিক্ষকের তত্ত্বাবধানে শিক্ষার্থীদেরকে প্রজেক্ট ভিত্তিক প্রাক্টিক্যালি শেখানোর মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটে কাজ পেতে সার্বিক সহায়তা করে যাচ্ছে।
বিস্তারিত জানতে ফেসবুক গ্রুপ ভিজিট করুনঃ
https://www.facebook.com/groups/beaconit.org/
অথবা সরাসরি অফিসে চলে আসুনঃ
বীকন আইটি, বাড়িঃ ৮৭, রোডঃ ৭, ও আর নিজাম রোড, সানমারের পাশে, জিইসি, চট্টগ্রাম।
ফোনঃ ০১৭৯০০০৪৪৮৮, ০১৮৬০৬০২০২০
প্রফেশনাল গ্রাফিক ডিজাইনার এবং সফল ফ্রিল্যান্সার হতে চাইলে এখনি শুরু করুন “ক্রিয়েটিভ গ্রাফিক ডিজাইন উইথ ফ্রিল্যান্সিং” কোর্সটি। বর্তমানে সকল কোর্স ফি এর উপর ৫০% ছাড়ে ভর্তি চলছে।।
  • Cost
    ৳7500
  • Start Time
    April 7, 2021 - 3:00pm
  • End Time
    August 14, 2021 - 5:00pm
  • Phone
    01860602020
  • Email
    beaconitbd@gmail.com
  • Organizer
    Beacon IT

Registrations are closed for this event